মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

দেউলী খন্দকার নুর আলম উচ্চ বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

টাঙ্গাইল জেলার অর্ন্তগত বাসাইল উপজেলাধীন দেউলী খন্দকার নুর আলম উচ্চ বিদ্যালয়টি অবস্থিত। টাঙ্গাইল জেলা হইতে ৭(সাত) কিলোমিটার পূর্ব দিকে অবস্থিত। ৬(ছয়) কিলোমিটার পাঁকা রাস্তা ১(এক) কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা। বাসাইল উপজেলা হইতে ৭(সাত) কিলোমিটার পশ্চিম দিকে বিদ্যালয়টি অবস্থিত। ৫(পাঁচ) কিলোমিটার পাঁকা রাস্তা ও ২(দুই) কিলোমিটার কাঁচা রাসত্মা।

 

নিবৃত্ত পল্লী অঞ্চল, এ অঞ্চলে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছিল না। এলাকার জনগনের ইচ্ছায় এ অঞ্চলে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রয়োজন। তাই এলাকাবাসী দেউলী গ্রামের দানবীর খন্দকার নূর আলম সাহেবের নিকট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলার  দাবী জানান। দেউলী গ্রামের দানবীর খন্দকার নূর আলম সাহেব অত্র বিদ্যালয়টি দেউলী খন্দকার নূর আলম উচ্চ বিদ্যালয় নামে ১৯৮৭ইং সনে প্রতিষ্ঠা করেন।

 

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
আ: সবুর 0 basail.tech@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

৬ষ্ঠ শ্রেণী- ৫৩ জন, ৭ম শ্রেণী- ৫৪ জন, ৮ম শ্রেণী- ৪৭ জন, ৯ম শ্রেণী- ৩৮ জন, ১০ম শ্রেণী- ৩৬ জন।

৯৫%

জনাব খঃ জিয়াউল হাসান

সভাপতি

জনাব খঃ নাজমুল হাসান

কো-অপ্ট সদস্য

জনাব খঃ নূর আলম

প্রতিষ্ঠাতা

জনাব এস.এম মজিবর রহমান

প্রধান শিক্ষক

জনাব দেওয়ান আব্দুল মান্নান

অভিভাবক সদস্য

জনাব মোঃ রফিকুল ইসলাম

জনাব মোঃ আনোয়ার হোসেন

জনাব মোঃ সুরুজ্জামান

জনাব মোঃ মজনু মিয়া

শিক্ষক প্রতিনিধি

জনাব মোঃ আনছের আলী

জনাব হাসিনা বেগম

মহিলা অভিভাবক সদস্য

২০০৭-৯০%, ২০০৮-৯৪%, ২০০৯-৯৬%, ২০১০-৯৭%,২০১১-৯৮%।

এস.এস.সি-২০০৭ ৪২.৮৫%, ২০০৮-৬৯.৬৪%, ২০০৯-৪৪.৪৪%, ২০১০-৭৬.৯২%, ২০১০-৯১.৮৯%।

জে.এস.সি-২০১০- ৮৪.৮৪%, ২০১১- ১০০%।

২০০৭- A+-০১ জন, ২০০৮- A+-০১ জন, ২০০৯- A+-০১ জন, ২০১০- A+-০২ জন সহ ফলাফল সন্তোষজনক।

 

বিদ্যালয়ের ভবিষ্যৎ উন্নয়ন পরিকল্পনার লক্ষে শিক্ষক ও অভিভাবক কমিটির সদস্যদের সমন্বয়ে কমিটি গঠন করে শিক্ষার্থীদের শিক্ষার গুণগতমান বৃদ্ধি করা হইবে এবং শিক্ষার্থীদের বাড়ী বাড়ী গমন করে সমন্বয় কমিটি তদারক ও অভিভাবকদের সাথে আলাপ আলোচনা  করা হইবে। পর্যায়ক্রমে বিদ্যালয়টি মহাবিদ্যালয় হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করা হইবে।